কবিতাসাহিত্য

যেভাবে বদলাই

যেমন খুশি আমার আঁকার ক্যানভাসে
সাতরঙ্গা বিষাদে, সে তুমি প্রেম ভাঙালে
যে তুলির আঁচড়ে আমি এঁকেছি রঙের ফোয়ারা
সে তুমি বিষাদের রঙে সাজালে।

যে পথে কেটেছে আমার কৈশোর আনন্দে
সে পথে কে তুমি মহুয়ার গন্ধে মাতালে,
যেমন খুশি আমার হলুদ আকাশ-
সে তুমি নীল রঙে কাঁদালে।

যেভাবে ছিল জীবন আমার ডালিম পাতায়-
আর শালিকের ঠোটে,
মেঠো পথ-
আর ঘাসের ডগার শিশিরে,
বুনো জাম-
আর অবহেলার ধুলোর প্রাচীরে।
সে তুমি যৌবনের তাপে কেন জ্বালালে?

যেখানে আমার অবহেলারা এখনো করে খেলা,
যেখানে আমার শৈশব এখনো বাঁধে বাসা,
যেখানে আমি চোখ বুঁজে দেখি নীল জলের নীচে সবুজ কাছিম,
আর ঢের সারা হলুদ ভালোবাসা-
সে তুমি কেন বদলে দিলে।

আমার এই ছেলেবেলা, দুরুন্ত দস্যিপনা,
এক প্রেম নয় হাজার প্রেম নিয়ে খেলা
সে তুমি বদলে দিলে-
কেন দিলে চরম বিষাদে?

মন্তব্য