একলা মানুষ

অনেক রক্ত গরম নিয়ে বড় হওয়ার জেদ –মুছে যায় নেশাতুর হয়ে,বুঝে গেছি এতদিনেপৃথিবীতে একলা বড় হতে হয়,ইস্পাতের মতো দৃঢ় হতে হয় আবেগ। কেউ কারো নয় একথা সত্য বড়যদি ছায়াও …

ভাঙনের সুর

আবার যদি ফিরে আসে, যদি ফেরা হয় চেনা বটের তলায় তবে মানুষ করে দিও, দেয়াল নয়, ভেঙ্গে পড়া বাতাস নয় ... এ মাটির একটা ঘাসফুল করে রেখে দিও পায়ের …

যে আলো ছড়ায়

কিছু মানুষ আছে যারা ক্ষনিকের আলোর মত এসে আজীবনের দাঁগ কেটে যায়। বাকিটা জীবন শুধু সে স্মৃতি নিয়েই রোমাঞ্চিত হই।

ভ্রান্তি

আমার হেঁটে যাওয়া পথের দু’পাশেমালঞ্চের ঝোপ আর কলমিলতায় বসে-একটা হলুদ প্রজাপতি নীল রঙের স্বপ্নে ভাসে। আমার ভ্রান্তি বিলাসে সে স্বপ্ন মেদুর রোদ হয়ে আসে। এখানে সযতনে রেখেছি ছাপ কাদামাটি …

ঘৃনায় বসতি

এখন আর কাউকে শোধরাই নানা পাখিদের, না বেজন্মাদেরশুধু শুয়োরের বাচ্চাদের চিনে রাখি-আর আজন্ম অভিশাপ দেই,কালো তালিকায় নাম তুলে। যখন প্রচন্ড আক্রোশে ভেতরটা মুচড়ে আসেআমি হাসি, হায়েনার মত, প্রেতের মত …

যে ভাষায় কথা বলি, স্বপ্ন দেখি

ফেব্রুয়ারী আসলেই সবার মাঝে ভাষা নিয়ে অত্যন্ত সচেতেনতা দেখা যায়। সে ভাষা বাংলা ভাষা। তারা এমনভাবে কথা বলেন যেন বাংলা বাদে অন্যান্য ভাষা ব্যবহার করাটা পাপ! কথাটা এভাবে না …

ফেরা হয়নি আমার

না… এভাবে ফেরা হয় না, এভাবে ফিরতেও চাই নিকারো পায়ের নীচে অহংকারের পাপোষ হয়েজমাট অভিমানটুকু জলাঞ্জলি দিয়ে-আমার আত্মায় জমা যেটুকু ধুলো সব তোমারি ইচ্ছায়। না, এভাবে ফিরতে চাইনি এই …

ছায়া প্রেম

বড় আপন থাকে ছায়া, রোদ এলে সে-ও হারিয়ে যায় পড়ে থাকে কংকাল, মৃত মায়া...।

যখন রাত নামে, প্রেম হাসে

যখন রাত নামে, ক্লান্তি ভর করে দু'চোখে... ঠিক তখনই প্রিয় মুখের ছায়া আবার জেগে উঠতে, বেঁচে থাকতে ইচ্ছে জোগায়।