চলে গেছে মেঘ,
দু’ফোঁটা আবেগ-
সাথে চৈতালী ছায়া,
নিয়ে বৃষ্টির মায়া।

শিশিরে জমা ধুলো
এই বিষন্ন বিকেলগুলো
আবেগের ভীষন তাড়া
টুপটাপ গাছের ছায়া।

হাত দুটি আরো কাছে
শরীরের ও উত্তাপ আছে,
মনে হয় ক্ষনিকের মায়া
অনন্তকাল পড়ে থাকে হিয়া।

আকুল করে বেঁধেছ যে প্রান
এই প্রেম, এই বৃষ্টি, এই শশ্মান
যত্নে গড়া মায়ার সংসার,
দূরে যাই, ফিরে আসি আবার।

জেনে রেখ যেন থাকে মনে –
যেখানেই যাই, যেভাবেই থাকি
একটু হাসি মুখের কল্পনায়,
চৈতালী মেঘ বিভোর রাখি।

চৈতালী মেঘ বৃষ্টি না ঝরিয়েই যদি চলে যায় দূরে, তবে প্রিয়তমার সাথে গাছতলায় আড্ডা হবে কি করে? ও মেঘ তুমি ফিরে এসো

লেখালেখির শুরু সেই স্কুলে থাকতেই। তখন বিভিন্ন দেয়ালিকা আর কিশোর পত্রিকায় নিয়মিত লিখতাম। এরপর দীর্ঘ বিরতি দিয়ে আবার ফেরা লেখালেখিতে। মূদ্রনে ভীষন অনীহা আমার। প্রযুক্তি সেই সুবিধা দিয়েছে আমাকে। প্রযুক্তি প্রেমিক বলে আমার লেখায় বারবার চলে আসে এই বিষয়গুলো। আমার সাহিত্য ভাবনা, ঘোরাঘুরি আর কিছু ছবি নিয়ে। একদম সাদামাটা একজন মানুষের মনের কোনে কি উঁকি দেয়?

Leave a Reply