ঐ চিবুকের ভাঁজ ছুয়ে নেমে যাওয়া হাসির মত
মৃত্যু উপত্যকা ছুঁয়ে এসো –
কানামাছি ভোঁ ভোঁ – যারে পাবি তারে ছো,
মনের গলির সন্ধিতে, নিঃশ্বাস ফেলে এসো

আমাদের গলিতে এখন দীর্ঘ প্রলাপ
রাত গুলো লম্বা আর দিনগুলো মন্থর।

আমাদের সময় কাটে জাবর কেটে –
সাইরেনের শব্দে আমরা কানামাছি খেলি
কানামাছি ভোঁ ভোঁ – যারে পাবি তারে ছো,
ক্ষুধার থেকে মৃত্যু শ্রেয়।

আমরা জাবর কাটি দিনরাত
আর খড়কুটো ধরে ভাসার চেষ্টায়
মৃত্যুর মিছিল দীর্ঘ থেকে দীর্ঘ হয়,
আমাদের রাত গুলো আরো মন্থর হয়।

আমরা অপেক্ষা করি গুজবের –
আমরা আশায় থাকি, ঐশ্বরিক কোন প্রতিদানের
আমাদের উপাসনালয় গুলো আরো আরাধ্য হয়,
এই জীবন, মৃত্যু আর অদৃশ্যের হাতে বন্দী এখন।

অথচ পৃথিবীর কোথাও যুদ্ধ নেই,
নেই বন্যা আর খরা
তবুও আমরা বসে আছি
এক অনিশ্চিতের দিকে মুখ তুলে।

লেখালেখির শুরু সেই স্কুলে থাকতেই। তখন বিভিন্ন দেয়ালিকা আর কিশোর পত্রিকায় নিয়মিত লিখতাম। এরপর দীর্ঘ বিরতি দিয়ে আবার ফেরা লেখালেখিতে। মূদ্রনে ভীষন অনীহা আমার। প্রযুক্তি সেই সুবিধা দিয়েছে আমাকে। প্রযুক্তি প্রেমিক বলে আমার লেখায় বারবার চলে আসে এই বিষয়গুলো। আমার সাহিত্য ভাবনা, ঘোরাঘুরি আর কিছু ছবি নিয়ে। একদম সাদামাটা একজন মানুষের মনের কোনে কি উঁকি দেয়?

Leave a Reply