Category: কবিতা

শহুরে কবিতা

অ – বলতে গিয়ে যদি “অক্ষর” ফুরিয়ে যায় –তবে কবিতারা সব ঘুমিয়ে থাক।বাদ যাক যত তারার ছাদের নিচে রাতযাপনসময় সেখানে সংক্ষিপ্ত পথ ধরে ভাষা শিখুক। হরতাল নামুক তোমার কবিতার …

আমার কারো উপর রাগ নেই –

আমার কারো উপর রাগ নেই – গলির মোড়ের চায়ের দোকানের ছেলেটা যে ধার দেবে না বলে চোখ ঘুরিয়েছেচল্লিশ কিংবা বায়ান্নর যে রিকশাওয়ালা –ভাড়া কম দিয়েছি বলে পেছনে গালি দিয়েছিল!দুরন্ত …

অভিমানের অ-কবিতারা

পদতলে হিমালয় ভাংগে, তবু পাঁচিল পেরোতেই দীর্ঘশ্বাস, হাতে হাত রেখে সমুদ্র পাড়ি দিয়েছি, তবু চেনা হয়নি এক সাথে কেটেছে কৈশোর আর যৌবন, তবু বোঝা হয়নি শোনা হয়নি অব্যক্ত আর্তনাদ …

আর কতটা দূরত্ব?

আমি আর কতটা মানুষ হলে বলো তুমি মানবী হবে?কতটা পথ গেলে বলো দূরত্ব কমবে,আর কতটা অভিমানে চাতক চোখে জল নামবে? কতটা সময় পেরিয়ে ঠিক ততটুকুই – ভালোবেসে সমুদ্র বা …

বেঁচে থাকুক ভালোবাসা –

এতটা নির্লিপ্ততাও চাইনি, এতটা উদাসীন দৃষ্টিও না –এতটা দীর্ঘশ্বাস নয়, পাজরে লেপ্টে থাকা ব্যথাও নামানুষ হিসেবে যেটুকু পেলে মনে হয় বেঁচে আছি – ঠিক সেটুকু অভিমান করে কাছে থেকো। …

নিভৃতে দুঃখ

কিছু কথা মনে মনে রয়ে যায়। যার যাতনা সে সয়ে যায়। কিছু কথা বুক ফাটলেও মুখে ফোটে না। কষ্ট সবারই হয়। কেউ কাঁদতে জানে, কারো কান্নায় জল নেই।

শহরের দেয়াল কথা কয় –

আমার যখন আকাশ ছোঁয়ার ইচ্ছে জাগে,মনটা যখন শহর ধরে ছোটে…তুমি তখন মগ্ন হয়ে… নখ কাটছ দাঁতের ফাঁকে। আমার যখন বৃষ্টি ভেজার ইচ্ছে হয়তুমি তখন মাতাল হাওয়ায় ভেসে ভেসেফিসফিসিয়ে শুনছ …

যেতে যদি চাও –

শব্দ নিয়ে খেলা করতে গিয়েই পরীক্ষা-নিরীক্ষা চলছে। কার অভিমানে সংসার ভাঙ্গে আবার মন কাঁদে? কার মায়ার আকর্ষনে আবার জোড়া লাগে। এক পথের ভালোবাসা ছেড়ে কেন অন্যপথে হাটে মানব মানবী?

কে চালে ঘুঁটি?

জীবনের খেলাঘর গনিতের নিয়ম মানে না। গনিত শুধু মাত্র ভবিষ্যত বলতে পারে। কিন্তু বদলে দেয়ার ভার শুধু মাত্র নিয়তির হাতে। এ যেন এক অনবরত দাবা খেলা।

আমার বেলা শেষে –

যদি হারিয়ে যাই এই ভীড়ের মাঝে – বেলা শেষে ফুরিয়ে যাই সাঁঝেজেনো ভালোবাসা মালা গেঁথে-সাজিয়েছি ভুল সময়ে, ভুল দেয়ালে। অর্ধেক মানুষ হয়ে আর অর্ধেক দেবতারআমাদের সময় ভুল ছিল, ভুল …