Category: কবিতা

মৃত আর্তনাদ

দেয়ালে দেয়ালে ঘোরে মৃত ইচ্ছার আর্তনাদ –ক্ষনিক বৃষ্টি, মেঘ জমা বর্ষার আকাশ।ভালোলেগে যদি মানুষ হয়, তবে ভালোমানুষিতে কেন সর্বনাশ?কেন জাগে বুকে অহংকারের তীব্র নিনাদ? কেন রাত জেগে দীর্ঘ ভোর …

অসভ্যদের সভ্যতা

বিষাদে নিল হয়েও বিষ পান করিনিবিশ কিংবা বায়ান্নর হিসেবেও ক্লান্ত হইনিশুধু বিষাদে আর্তনাদ করেছি গোপনেসব পথ গিয়ে শেষে আমাতেই গোপন হয়,তবুও ধীর পায়ে জ্বরা আসে, শোক আসে-আমার গোপন অসুখটা …

হায় জীবন!

খোলা আকাশের নিচে কেউ কেউ – একটা ঘাস ফড়িঙের জীবন কাটিয়ে দেয় –পায়ের তলায় শিশিরদানা মাড়িয়ে – শুয়ে থাকে শীতের বিছানায়। জীবন এমন হবার কথা ছিল না, এমন নিঃসঙ্গ …

সুধাই

এইতো অস্থির জীবন,তোমার আমার গল্প যেমন- বাকিটা অন্তরালে অভিমানেযাচ্ছে জীবন এভাবে চলে। শেষের থেকে অল্প দূরেভালোবাসা যদি নাই থাকে! এইতো তরুর ছায়া –ফেলে রেখেছি দীর্ঘ মায়া। এই নিঃশ্বাস, এই …

এখন আমার বিষাদে

এখন এমনকি নারী আর মাদকেও মন টানে না,বিষন্ন থাকে না লাল রঙা গোধূলি –এখন আর আলতো পায়ে টিপ টিপ করে হাটি না –বিকেলের ঘুম ভেঙ্গে যাক – তাতে কার …

অহংকারের উচ্চারন

ভালোবাসি এই কথাটি বলতে প্রেমিকের বেশ একটা অহংকার জাগে মনে। ভালোবাসতে পারার অহংকার। নিজেকে বাদে অন্য কাউকে প্রিয় ভাবার একটা অহংকার। ভালোবাসার মর্যাদাটাই এখানে।

জলরঙের প্রতিচ্ছবি

ভীষন চাঁদের একলা পিঠে আমি দাগ কাটি –আমি বড় একলা ভাবি, একলা থাকি, ঘুমাই-হাসি,গল্প-মিতা, পথ-প্রান্তর ফুরোলেই বড়ো একলা খোলসে বসি।আমার বড় একলা আকাশ, একলা ডানায় রোদমাখা সূর্যটারে বাঁধি,সেই একলা …

এখনো অভিমান –

বিষন্ন বাতাসে গোধূলির রঙ্গিন –মুছে যাক জীবন প্রদীপ, সূর্যের দিন। করতলে ভাঙে কদমের ফুল, পায়ের নিচে সর্ষে দানা,হাসতে মানা, গাইতে মানা- এক’জীবন সন্ধ্যায় চোখের বুকে ডুবতে মানা। একদিন শহরজুড়ে …

পুরনো ঠিকানা

ফেরার পথ থাকে না কোন কোন সময়ে,মাঝে মাঝে হারিয়ে যাই আবার চেনা পথেও।চেনা রাস্তায় পথ হারিয়ে ফেলাটাওমাঝে মাঝে আনন্দের – এই সব ভুলে, তোমার সাথেও দেখা হয়ে যায় কখনওফেরার …

ফেরারী শহর

ভেবেছি তোমাদের শহরে আর ফিরবো না-পিচ ঢালা কালো পথে আর হাঁটবো না,হারাবো না কোন শুহুরে বাতাসে, যেখানে –রিকশায় বসে কৃত্তিম মানুষ স্মৃতিচারন করে। আমি এবং আমাদের আর ফেরা হবে …