Avengers: Endgame – মুভি রিভিউ

Avengers: Endgame - হলিউড মুভি রিভিউ
  • কাহিনী
  • চরিত্র
  • মিউজিক
  • সিনেমেটোগ্রাফী
  • গ্রাফিক্স
4.9

Avengers: Endgame - অনেক আশা ও হতাশার মুভি

অনেক আশা নিয়ে যারা দেখতে বসবেন তারা একটুও হতাশ হবেন না। দীর্ঘ তিন ঘন্টা কিভাবে উড়ে যাবে টের পাবার আগেই কিছুটা মন খারাপ আর কিছুটা হতাশা নিয়ে স্ক্রিন থেকে চোখ সরাবেন।

মার্ভেল ইউনিভার্সের সব হিরোকেই মোটামুটি দেখতে পাবেন আর গল্পের শেষটা মধুর হতে গিয়েও হলো না এই রকম একটা অনুভুতি হবে আপনার। টাইম ট্রাভেল, কোয়ান্টাম ফিজিক্স, টেকনোলজিকাল ফাইট, স্পেস ফ্লাইট এবং অসাধারন মিউজিক এর মিশেলে এ বছরের সেরা সাই-ফাই একশন মুভি Avengers: Endgame।

Avengers: Endgame

ডিরেক্টর: Anthony Russo, Joe Russo
সময়ঃ ৩ ঘন্টা ১ মিনিট
অভিনয়েঃ Robert Downey Jr., Chris Evans, Mark Ruffalo, Chris Hemsworth, Scarlett Johansson , Jeremy Renner এবং বাকি মার্ভেল ইউনিভার্স 🙂

মার্ভেল ইউনিভার্সের আগের ২১ টা মুভির লম্বা সিরিয়ালে যা যা দেখানো হয়েছে তার সব কিছু এসে শেষ হল Avengers: Endgame এই মুভিতে।

শুধু আমেরিকাতেই নয়, সারা বিশ্বের কমিক্স আর মার্ভেল মুভি ভক্তদের কাছে এই মুভিটি ছিল চরম আরাধ্য একটি বিষয়। কিভাবে কি হয়, থ্যানস এর সাথে কিভাবে লড়াই করে ফিরিয়ে আনা হবে ধুলোয় মিশে যাওয়া মহাবিশ্বের অর্ধেক প্রান?

টনি স্টার্ক – মানে আমদের প্রিয় আয়রন ম্যান স্পেসে ভাসছে। খাবার শেষ, অক্সিজেন ও শেষের পথে। বাঁচার সকল আশা প্রায় শেষ, প্রিয়তমার জন্য সে শেষ মেসেজ রেকর্ড করছে। ট্রেইলারে আমরা এরকম দেখতে পাই। কিন্তু কিভাবে উদ্ধার হবে তা নিয়ে ব্যপক জল্পনা-কল্পনা ছিল মুভি ভক্তদের মাঝে।

যদিও সব কমিক্স ফ্যান আর মার্ভেল ভক্তরা ধরেই নিয়েছিল ক্যাপ্টেন মার্ভেল এসে উদ্ধার করবে আয়রন ম্যানকে। যে কারনেই ক্যাপ্টেন মার্ভেল এর মুভিটি Avengers: Endgame এর আগে রিলিজ করা হয়েছিল। ধারাবাহিকতা মেনে চলার একটা বিষয় ছিল মার্ভেল ইউনিভার্সে।

তারপরও মনযোগী দর্শকরা জানেন প্রতিটা মার্ভেল মুভিতেই পোষ্ট ক্রেডিট সিনে ধারনা দিয়ে দেয়া হয় এর পরে কি আসছে।

Avengers: Endgame এর পোস্ট ক্রেডিট সিনে কিন্তু শুধু একটা হাতুড়ির বাড়ির শব্দ শোনা যায়। কোন নতুন সুপারহিরোর ঘোষনা নেই। এই শব্দটা কিন্তু আমরা শুনতে পাই টনি স্টার্ক যখন প্রথম আয়রন ম্যান মুভিতে গুহার ভিতরে তার প্রথম আয়রন স্যুট বানাচ্ছিল তখন।

Avengers: Endgame মুভি যারা ইতিমধ্যে দেখে ফেলেছেন তারা জানেন সব হিরো ফিরে আসলেও, মুভিতে কিন্তু Black Widow আর Iron Man কে মেরে ফেলা হয়।

নাহ, আপনার হতাশ হবার কিছু নাই। নিশ্চিত ভাবে জেনে রাখুন এরা আবার ফিরে আসছে মার্বেল ইউনিভার্সের নতুন মুভিতে, কারন ইতিমধ্যে মার্ভেল ইউনিভার্সে প্যারালাল টাইম লাইন আর টাইম ট্রাভেল চলে এসেছে।

আর যেই লুপ বা মোবিয়াস স্ট্রিপের পরিচয় করিয়ে দেয়া হয়েছে Avengers: Endgame এ, তাতে ধরেই নিতে পারেন সব কিছু ফিরে আসবে আবার। কোন হিরোই হারিয়ে যাবে না।

বলুনতো কয়জন ধারনা করতে পেরেছিল টাইম ট্রাভেল নিয়ে আসা হবে এই ছবিতে? আর তাও প্যারালাল টাইমলাইনের আইডিয়া ব্যবহার করে?

তিন ঘন্টার মুভি শুরু হবার কিছুক্ষন পরেই যখন ক্যাপ্টেন মার্ভেল, থর আর হাল্ক বাস্টারের আক্রমনে থ্যানসের গর্দান উড়ে যায় তখন নড়েচড়ে বসতে আপনি বাধ্য। এটা কি হল?

সেই একশন আর টুইস্ট কোথায়? টুইস্ট এসে গেল যখন ইনফিনিটি স্টোনগুলো আর খুঁজে পাওয়া যায়না তখন। এখন কি হবে? থ্যানস তার কাজ শেষ করার পরপরই ইনফিনিটি স্টোনগুলো ধবংস করে ফেলে।

তাহলে কিভাবে ফিরিয়ে আনা হবে হারিয়ে যাওয়া অর্ধেক প্রান?

এই সময় আবির্ভাব ঘটে এন্ট ম্যানের (Ant Man), কোয়ান্টাম ওয়ার্ল্ডে গিয়ে যে পাঁচ বছর আটকে ছিল। সে জানায় টাইম ট্রাভেল সম্ভব এবং কোয়ন্টাম লেভেলে গিয়েই একমাত্র তা অর্জন করতে হবে। প্রথমদিকে বিপদের কথা চিন্তা করলেও টনি স্টার্ক শেষ পরযন্ত রাজি হয়ে যায় সাহায্য করতে।

স্পেশাল স্যুট এবং টাইম টার্গেটিং ডিভাইস বানানো হয়। এই হিরোরা এরপর কোয়ান্টাম লিপের মাধ্যমে অতীতে গিয়ে ইনফিনিটি স্টোনগুলো সংগ্রহ করে নিয়ে আসে। প্লান ছিল এর মাধ্যমে হারিয়ে যাওয়া সবাইকে আবার ফিরিয়ে নিয়ে আসা হবে।

হাল্কের গানলেট পরে করা সে চেষ্টা সফলও হয়। হাল্কের তুড়িতেই ফিরে আসে হারিয়ে যাওয়া সব প্রান।

কিন্তু বাধ সাধে যখন অতীতের আরেক টাইমলাইন থেকে থ্যানস এসে এই টাইমলাইনে বাগড়া দেয়।

কিন্তু এবার থ্যানসের বিরুদ্ধে সব হিরোরা মিলে লড়াই শুর করে আর থ্যানস এবার ইনফিনিটি স্টোনের সাহায্যও পায় না। আয়রন ম্যান ইনফিনিটি স্টোনের পাওয়ার ব্যবহার করে থ্যানস আর তার আর্মিকে গায়েব করে দেয়। প্রক্রিয়ায় নিজেও মৃত্যুবরন করে।

আগেই বলেছি, আয়রন ম্যান আবার ফিরে আসবে। হতাশ হবার কিছু নেই।

অনেক লম্বা মুভি, ধৈর্য নিয়ে দেখতে বসবেন। আমি এখানে স্পয়লার দিয়ে দিলাম। কাজেই যারা মুভি দেখেননি দয়া করে রিভিউ না পড়ে আগে মুভি দেখুন।

যথারীতি অসাধারন গ্রাফিক্স, কাহিনী কিছুটা গোলমেলে যদি টাইম ট্রাভেল আর কোয়ান্টাম ফিজিক্স এর কিছু বেসিক জিনিস আপনি না জেনে থাকেন। লজিক ব্যবহারের আপ্রান চেষ্টা চলেছে।

আমি বেশ খুশি। এরকম একটা সমাপ্তি বেশ ভালো লেগেছে।

Leave a Reply